ব্যক্তিকেন্দ্রিক প্রতিষ্ঠানে পরিণত হয়েছে বিএনপি, উপেক্ষিত সাধারণের মতামত!

0
103
1

 

ব্যক্তিকেন্দ্রিক প্রতিষ্ঠানে পরিণত হয়েছে বিএনপি, উপেক্ষিত সাধারণের মতামত!

বাংলা নিউজ ব্যাংক :

09.04.2019
নিউজ ডেস্ক: দলের অভ্যন্তরে গণতন্ত্র চর্চা ও গবেষণার অভাবে রাজনীতিতে পোড় খেয়ে রাজপথের আন্দোলন-কর্মসূচিতে বিমুখ এবং পরনির্ভরশীল হয়ে পড়েছে বিএনপি। গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ায় দলের নেতারা নির্বাচনে ব্যর্থতার পরিচয় দেয়ায় গণতান্ত্রিক মহলে প্রায় একঘরে হয়ে গেছে দলটি। এসব ভুলের জন্য বিএনপিকে দীর্ঘমেয়াদে ভুগতে হবে বলে মনে করছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা।

বিএনপির পরনির্ভরশীলতা, ভঙ্গুর দশা এবং অপরিপক্ব রাজনীতির বিষয়ে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের সরকার ও রাজনীতি বিভাগের একজন অধ্যাপক বলেন, বিএনপির রাজনীতিতে পরিবারতান্ত্রিকতার প্রভাব প্রচুর। গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়া বাদ দিয়ে অনেকটা স্বৈরতান্ত্রিক প্রক্রিয়ায় নেতা নির্বাচিত করায় অন্যান্য নেতাদের মতামত প্রায়ই উপেক্ষিত থেকে যায়। অবমূল্যায়িত হওয়ায় নেতারা আর স্বপ্রণোদিত হয়ে দলের ভালোর জন্য পরামর্শ দিতে চান না। তাতে দল নতুন ধারণা ও চিন্তা থেকে বঞ্চিত হয়। ঠিক সেটিই হচ্ছে এখন বিএনপিতে।

তিনি আরো বলেন, বিএনপির রাজনীতিতে পরিবারতন্ত্র ও গোষ্ঠীতন্ত্র জেঁকে বসেছে। মূলত এ কারণেই বিএনপি সময়মতো সম্মেলন করতে চায় না। পাশাপাশি গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ায়ও নেতা নির্বাচন করা হয় না। যার কারণে বিএনপি রাজনৈতিক চরিত্র হারিয়ে একধরণের ব্যক্তিকেন্দ্রিক সংগঠনে পরিণত হয়েছে। তাই দলটি জনগণের কথা ভাবার পরিবর্তে সিন্ডিকেটের মতো আচরণ করছে। এ সিন্ডিকেট গুটিকয়েক ব্যক্তির স্বার্থ সংরক্ষণ করছে।

বিষয়টিকে বিশদভাবে ব্যাখ্যা করে জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জাসদ) একজন পলিটব্যুরোর সদস্য বলেন, বিএনপি তো ব্যক্তি সংগঠন, এটিকে রাজনৈতিক সংগঠন বললে ভুল হবে। বেগম জিয়া ও তারেক রহমান সংগঠনটির মালিক। তাদের ইশারায় দলটির নেতারা উঠবস করেন। এই দলে তো গণতন্ত্রের লেশমাত্র নেই। যার কারণে প্রতিবার গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নিতে ভুল করে বিএনপি। যে দল ব্যক্তি স্বার্থের বাইরে যেতে পারে না, যে দলে স্বতন্ত্র কোনো চিন্তার মূল্য নেই, সেই দল তো সিদ্ধান্তহীনতায় ভুগবে এটাই স্বাভাবিক।

তিনি আরো বলেন, বিএনপিকে গণতন্ত্রে বিশ্বাস করতে হবে তবেই দলে গণতান্ত্রিক চর্চা শুরু হতে পারে। দলে ব্যক্তিকেন্দ্রিক প্রভাব কমিয়ে সাধারণদের চিন্তা-ভাবনাকে প্রাধান্য দিলেই দলটি শক্তিশালী হতে পারবে। অন্যথায় বিএনপি কখনই রাজনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারবে না।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here