দেশেই এখন তৈরি হচ্ছে বিশ্ব মানের পণ্য : শিল্প প্রতিমন্ত্রী

0
65

 

শিল্প প্রতিমন্ত্রী কামাল আহমেদ মজুমদার বলেছেন, দেশে প্রত্যেকটি শিল্প কারখানার জন্য নির্দিষ্ট অঞ্চল গড়ে তোলা হচ্ছে। কৃষি জমির উপর কোন শিল্পকারখানা স্থাপন করা যাবে না। জনবসতিপূর্ণ ও আবাসিক এলাকায়ও কোন শিল্প কারখানা স্থাপন করা যাবে না। এসব এলাকায় যেসকল কারখানা স্থাপিত হয়েছে সেগুলোকে সরিয়ে নিতে সময় বেঁধে দেয়া হবে। তারপরও কারখানা না সরালে মালিকদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

 

বৃহস্পতিবার (২৫ জুলাই) দুপুরে গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের বাহাদুরপুর এলাকায় অবস্থিত ম্যাকডোনাল্ড স্টিল পাইপ স্ট্রাকচার ফেব্রিকেশন ফ্যাক্টরির উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রতিমন্ত্রী ওইসব কথা বলেন। এতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন কারখানার ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোঃ. সারোয়ার কামাল, সিইও সৈয়দ আহমদ।

 

প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, দেশে ১০০টি অর্থনৈতিক অঞ্চল তৈরি করা হয়েছে। এসব অঞ্চলে পরিবেশ বান্ধব এবং আধুনিক প্রযুক্তি নির্ভর কারখানা স্থাপন করা হবে। যেসব কারখানা দেশে বিক্ষিপ্তভাবে ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছে সেগুলোকে এসব অর্থনৈতিক অঞ্চলে নিয়ে আসা হবে। বর্তমান সরকারের নেতৃত্বে বাংলাদেশের অর্থনীতি দ্রুত বিকশিত হচ্ছে। বিনিয়োগের নতুন নতুন দ্বার উন্মোচিত হচ্ছে। দেশীয় উৎপাদিত কোন পণ্য যাতে মার না খায় সে বিবেচনায় ওইসব পণ্যের আমদানি নিরুৎসাহিত করা হচ্ছে। তাই কিছু পণ্যের ন্যায় স্টিলের পণ্য আমদানিতেও শুল্ক ধার্য করা হয়েছে।

 

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্যে সারোয়ার কামাল বলেন, ১৯৯৮সালে এ কারখানার যাত্রা শুরু হয়। স্টিল স্ট্রাকচার তৈরিতে এ কারখানা ইতোমধ্যে দেশে-বিদেশে সুনাম অর্জন করেছে। তাদের তৈরি স্টিল স্ট্রাকচার নেপালে রপ্তানি করেছে। তারা যশোরে শেখ হাসিনা আইটি পার্ক প্রজেক্টের ডরমেটরী ভবন, বাংলাদেশ রেলওয়ে স্লিপার প্রজেক্ট, সিলেট আইটি পার্ক প্রজেক্ট, খুলনা শিপইয়ার্ড প্রজেক্ট, চট্টগ্রামের ঈশা খাঁ নেভি হ্যাঙ্গার প্রজেক্ট,পদ্মা ব্রিজের টোল প্লাজা, পার্বতীপুর-কাঞ্চন-পঞ্চগড় রেলওয়ে ব্রিজ নির্মাণসহ ৮০০টির মত প্রকল্প সম্পন্ন করেছেন। এছাড়া মেট্রোরেল (ল্যান্ডিং স্টেশন)) প্রকল্পের প্রয়োজনীয় স্টিল পাইপ/ স্ট্রাকচার সরবরাহের কাজও পেয়েছে

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here