হজ ব্যবস্থাপনায় প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের ৯ নির্দেশ

0
22

হজ ব্যবস্থাপনা সফল করতে ৯টি নির্দেশ দিয়েছে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়। সম্প্রতি প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ে প্রধানমন্ত্রীর মুখ্যসচিব আহমদ কায়কাউসের সভাপতিত্বে হজ ব্যবস্থাপনাসংক্রান্ত পর্যালোচনাসভায় এসব নির্দেশ দেওয়া হয়।

নির্দেশগুলোর মধ্যে রয়েছে-হজযাত্রী পরিবহণে সম্ভাব্য সব ফ্লাইট ডেডিকেটেড হতে হবে। ফ্লাইট বিপর্যয় যেন না হয়, তা নিশ্চিত করতে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবে। হজযাত্রী পরিবহণের ক্ষেত্রে সব এয়ারলাইন্সকে ‘রুট-টু-মক্কা ইনিসিয়েটিভ’-এর বাধ্যবাধকতা অনুসরণ করতে হবে। হজ ক্যাম্পেই সব ইমিগ্রেশন সম্পন্নের ব্যবস্থা করতে হবে। এজন্য হজ ক্যাম্পে প্রয়োজনীয় সংখ্যক বুথ নিশ্চিত করতে হবে এবং বিশেষ প্রয়োজনে ব্যবহারের জন্য অতিরিক্ত হিসাবে বিমানবন্দরে দুটি বুথ স্থাপন করতে হবে।
সুষ্ঠুভাবে ইমিগ্রেশন সম্পন্নের জন্য ধর্মবিষয়ক মন্ত্রণালয় থেকে হজযাত্রীদের প্রয়োজনীয় ব্যক্তিগত তথ্যাদি ইমিগ্রেশন কর্তৃপক্ষের কাছে অগ্রিম সরবরাহ করতে হবে। হজযাত্রীদের আরটি-পিসিআর টেস্ট সুষ্ঠুভাবে সম্পন্নের জন্য ডেডিকেটেড হাসপাতাল নির্ধারণসহ ধর্মবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে সমন্বয়পূর্বক স্বাস্থ্য সেবা বিভাগকে প্রয়োজনীয় কার্যক্রম গ্রহণ করতে হবে। হজযাত্রীদের কোভিড-১৯ টিকা গ্রহণসংক্রান্ত ‘সুরক্ষা অ্যাপ’-এ রক্ষিত তথ্যপ্রাপ্তি হজ ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষের কাছে সহজলভ্য করতে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ প্রয়োজনীয় সহায়তা দেবে। হজযাত্রীদের যাতে কোনো ধরনের কষ্ট না হয়, সেলক্ষ্যে হজ ক্যাম্পে সব সেবা দেওয়া প্রতিষ্ঠানকে সার্বক্ষণিক সেবাদান কার্যক্রম নিশ্চিত করতে হবে। এয়ারপোর্ট থেকে হজ ক্যাম্পে যাতায়াতের রাস্তা সচল ও বাধাহীন রাখতে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন এবং সড়ক পরিবহণ ও মহাসড়ক বিভাগকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে হবে।

চাঁদ দেখা সাপেক্ষে আগামী ৮ জুলাই সৌদি আরবে পবিত্র হজ অনুষ্ঠিত হবে। এবার বাংলাদেশ থেকে ৫৭ হাজার ৫৮৫ জন হজ পালনের সুযোগ পাবেন। এর মধ্যে সরকারি ব্যবস্থাপনায় ৪ হাজার জন ও বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ৫৩ হাজার ৫৮৫ জন হজে যেতে পারবেন।

এদিকে বেসরকারি হজযাত্রীদের নিবন্ধন গত রোববার শেষ হয়েছে। সরকারি হজযাত্রী নিবন্ধন চলবে আজ মঙ্গলবার পর্যন্ত। ৩১ মে থেকে হজ ফ্লাইট শুরুর সময় নির্ধারণ করেছে সৌদি আরব। তবে বাংলাদেশ প্রথম দিনেই হজ ফ্লাইট শুরু করতে পারবে কি না, তা নিয়ে সংশয়ে আছেন হজসংশ্লিষ্টরা।

ই-হজ সিস্টেমে সরাসরি এজেন্সি : চলতি বছর হজের ক্ষেত্রে ই-হজ সিস্টেমে সমস্যায় সৌদি আরবের কর্তৃপক্ষের সঙ্গে সরাসরি যোগাযোগ করতে পারবে বাংলাদেশের এজেন্সিগুলো। সোমবার মক্কার বাংলাদেশ হজ অফিস থেকে এ তথ্য জানানো হয়েছে। ধর্ম মন্ত্রণালয় থেকে পাঠানো তথ্যে বলা হয়েছে, হজ উপলক্ষ্যে রাজকীয় সৌদি সরকারের হজ ও ওমরাহ মন্ত্রণালয়ের আইটি কোম্পানি ই-হজ সিস্টেমের যাবতীয় কর্মকাণ্ড পরিচালনা করে। ই-হজ সিস্টেমের বিভিন্ন বিষয়ে কোন এজেন্সি বা মোনাজ্জেমদের সমস্যা মনে হলে ই-হজ সিস্টেমে টিকিট অপশন থেকে ম্যাসেজ প্রদান কিংবা সরাসরি আহমেদ সাঈদীর (মোবাইল নম্বর-০৫৪৬৯০৫২৬৮) সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারবেন। বিষয়টি সব হজ এজেন্সি বা মোনাজ্জেমকে অবহিত করতে অনুরোধ জানিয়েছে ধর্ম মন্ত্রণালয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here